করোনা ভাইরাস নিয়ে চীনের যে ৮টি পরামর্শ

Corona

বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস মুলত ইতালির প্রবাসী রাই এনেছে। বর্তমান ইতালির অবস্থা দেখে মনে হয় অতি উচ্চ হারে সংক্রমিত হয় এই ভাইরাস। এজন্য বাংলাদেশ অতি উচ্চ ঝুঁকি তে আছে। ইতালি প্রবাসী ছাড়া ও অন্যান্য দেশের প্রবাসী রাও বাংলাদেশ এ করোনা ভাইরাস এর জন্য দায়ী। বাংলাদেশ একটি জনবহুল দেশ হওয়ার জন্য এখন ই জরুরী অবস্থা জারি করতে হবে। তবে যেহেতু করোনা ভাইরাস ইতিমধ্যেই ছডিয়ে পরেছে তাই এখন থেকেই প্রস্তুতি নিতে শুরু করতে হবে। নিচের ৮টি পরামর্শ দিয়েছেন চীনের বিশেষজ্ঞরা।

১. কাঁশি, সর্দি হলে তাৎক্ষণিক আপনাকে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে। ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করতে বলা হয়েছে।

২. খুব বেশি প্রয়োজন না হলে বাইরে যেতে মানা করেছে। সপ্তাহে ১ দিন বাজার করতে বলেছে।

৩. এলাকা ভিত্তিতে লকডাউন করা হয়। যাতে করে করোনায় আক্রান্ত মানুষ এক এলাকা থেকে অন্য কোথাও ঢুকতে না পারে।

৪. বাইরে গেলে অবশ্যই মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

৫. বাইরে থেকে এসে হ্যান্ড স্যানিটাইজার দিয়ে ভালভাবে হাত ধুতে বলা হয়েছিল।

৬. অযথা চোখে মুখে হাত দেয়া থেকে বিরত থাকতে বলা হয়েছিল।

৭. মানসিক ভাবে শক্ত থাকতে বলা হয়েছিল।

৮. নিয়মিত খাওয়া-দাওয়া এবং ব্যায়াম করতে বলা হয়েছে

Please follow and like us:
error0
Tweet 20
fb-share-icon20

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *