colorgeo.com

Disaster and Earth Science

সাহারান ধুলো কিভাবে আটলান্টিক অববাহিকাকে শান্ত রাখতে সাহায্য করে?

sandstroms

সাল ২০২১। আটলান্টিক ঘূর্ণিঝড় মৌসুমের তখন প্রায় দুই মাস চলছিল। এর বেশ কয়েক সপ্তাহ আগে হারিকেন এলসার তান্ডব চালিয়ে গিয়েছে ৷ গ্রীষ্মমন্ডলীয় অঞ্চল তখন কিছুটা শান্ত, আটলান্টিক জুড়ে সাহারান ধূলিকণার কারণে।

কিন্তু, এই সাহারান ধুলো আসলে কি? 

সাহারান ধূলিকণা এমন একটি জিনিস যা আমরা প্রতি বছর দেখি যখন সাহারা মরুভূমিতে প্রবল বাতাস তৈরি হয়, বাতাস এবং আপড্রাফ্ট মাটির শুষ্ক উপরের স্তরকে বায়ুমণ্ডলে তুলে নেয়।  পূর্ব থেকে বাণিজ্য বায়ু আটলান্টিকের ধূলিকণা বহন করতে পারে।

 কখনও কখনও, যখন ধূলিকণা যথেষ্ট বড় হয় এবং পূর্বদিকের বাতাস যথেষ্ট শক্তিশালী হয়, তখন এটি ক্যারিবিয়ান এবং এমনকি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র পর্যন্ত চলে যেতে পারে।

ঘূর্ণিঝড়ের মৌসুমে এটা কি প্রভাব ফেলে?

ধূলিকণাগুলি গ্রীষ্মমন্ডলীয় ঘূর্ণিঝড়ের বিকাশকে বাধা দেয় বলে মনে হয়, যদিও এই বিষয়ে বর্তমানে গবেষণা চলছে।

ধূলিকণা খুব শুষ্ক বাতাসের সাথে মিশ্রিত হয় এবং সাধারণত শক্তিশালী বাতাস থাকে, যার কোনটিই গ্রীষ্মমন্ডলীয় পরিচলনের জন্য ভাল নয়।  গ্রীষ্মমন্ডলীয় আটলান্টিক বায়ুমণ্ডলের বাকি অংশের তুলনায় এটি প্রায় ৫০% শুষ্ক। মধ্যস্তরের বাতাস ২৫ থেকে ৫৫ মাইল প্রতি ঘণ্টা বেগে চলে এবং ঝড়কে ছিঁড়ে ফেলতে পারে বা তাদের সংগঠিত হতে বাধা দিতে পারে।

বছরের এই সময়ে আফ্রিকার উপকূল থেকে আসা ধূলিকণা খুবই স্বাভাবিক। এটা সাধারণত জুনের মাঝামাঝি থেকে শুরু হয় এবং আগস্টের মাঝামাঝি পর্যন্ত চলে, মাঝখানে কোথাও বেশ বেড়ে যায়।  NOAA-এর মতে, আগস্টের মাঝামাঝি সময়ের পরে ধূলিকণাগুলি দ্রুত হ্রাস পেতে শুরু করে, যে কারণে আমরা আগস্ট এবং সেপ্টেম্বরে গ্রীষ্মমন্ডলীয় কার্যকলাপের বৃদ্ধিও দেখতে পাই।

এটা সাধারণ কোনো ধুলোঝড় নয় :

বিভ্রান্তি এড়াতে এবং সবচেয়ে সাধারণ ভুল ধারণাগুলির একটি পরিষ্কার করার জন্য বলবো, বছরের এই সময়ে আমরা যে ধুলোর আগমন দেখি তা কোনো সাধারণ ধুলো ঝড় নয়। ৫,০০০ ফুট থেকে ২০,০০০ ফুট বা প্রায় এক থেকে চার মাইলের মধ্যে ধূলিকণা বায়ুমণ্ডলে উচ্চতায় ঝুলে থাকে। যেটা সাধারণ কোনো ধূলিঝড়ের বৈশিষ্ট্য নয়। 

ডোরিয়ান নামের একটি ঝড়ের ব্যাপারে ব্যাখ্যা করতে গিয়ে NOAA বিশেষজ্ঞ জেসন ডুনিয়ন বিবিসিকে ব্যাখ্যা করেছেন যে ক্যারিবিয়ান জলের উষ্ণ তাপমাত্রার কারণে, এই ঝড়টি ভয়ঙ্কর হয়ে উঠতে পারতো, তবে আফ্রিকা থেকে আসা বালির কারণে এটি শুধুমাত্র অল্প সময় পর্যন্ত শক্তিশালী ছিল।

বিশেষজ্ঞরা এই বিষয়ে খুব জোর দিয়ে আসছেন। আটলান্টিকে ঘূর্ণিঝড়ের উত্থান এবং বিকাশের উপর সাহারা থেকে ধূলিকণাযুক্ত বাতাসের প্রভাবের বিষয়টি খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

NOAA বিশেষজ্ঞরা ইঙ্গিত দিয়েছেন যে সাহারা থেকে আসা ধূলিকণার ঘন স্তর যা অনেকসময়ই আটলান্টিকের পূর্ব কেন্দ্র এবং দক্ষিণ ক্যারিবিয়ান সাগরকে ঢেকে রাখে তা বায়ুমণ্ডলীয় আর্দ্রতা হ্রাসের উপর প্রভাব ফেলে, যা ঘূর্ণিঝড়ের তীব্রতাকে সীমিত করে।

এই অত্যন্ত শুষ্ক বায়ু ঝড়ের চারপাশে মেঘের গঠনকে দমিয়ে দিয়ে গ্রীষ্মমন্ডলীয় ঘূর্ণিঝড় বা গ্রীষ্মমন্ডলীয় ব্যাঘাতকে দুর্বল করে দিতে পারে।

NOAA বিশেষজ্ঞ যুক্তি দিয়েছিলেন যে সাহারান ধূলিকণার ঋতু সাধারণত জুনের মাঝামাঝি থেকে আগস্টের মাঝামাঝি পর্যন্ত শীর্ষে থাকে, যখন বৃহত্তম স্তরটি আটলান্টিক পেরিয়ে আরও পশ্চিমে পৌঁছায়।

এই কারণেই হারিকেন মৌসুমের উচ্চ পর্যায় সেপ্টেম্বরে শুরু হয়।

উষ্ণ সমুদ্রের পৃষ্ঠে সঞ্চিত তাপ হারিকেনের জ্বালানী হিসাবে পরিচিত, যা শক্তিশালী এবং ঘন ঘন ঝড় সৃষ্টি করে। ২০০৬ সালের হারিকেন মৌসুমে উত্তর আটলান্টিকের সমুদ্র পৃষ্ঠের তাপমাত্রা তুলনামূলকভাবে শীতল ছিল এবং ২০০৫ সালে ১৫ টির তুলনায় এই মৌসুমে মাত্র পাঁচটি হারিকেন জন্মেছিল, যেখানে সমুদ্র পৃষ্ঠ উষ্ণ ছিল।

এই রিপোর্টগুলো আটলান্টিককে শীতল করার ক্ষেত্রে ধূলিকণার ভূমিকার ব্যাপারে ধারণা প্রদান করে এবং হারিকেন কার্যকলাপকে প্রভাবিত করার সম্ভাব্য গুরুত্বপূর্ণ কারণ হিসাবে এসব ধূলিকণার প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করে।

Please follow and like us:
error0
fb-share-icon
Tweet 20
fb-share-icon20