colorgeo.com

Disaster and Earth Science

Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বিশ্বব্রহ্মাণ্ড সৃষ্টির শুরুতে যে মহা বিস্ফোরণ হয়েছিল সেই মহা বিস্ফোরণ কে বলা হয় বিগ ব্যাং। এরপর থেকে বিশ্বব্রহ্মাণ্ড প্রতিনিয়ত প্রসারিত হচ্ছে এবং নক্ষত্র সূর্য তারা এর জন্ম মৃত্যু মধ্য দিয়ে আমাদের এই গ্যালাক্সি, সৌর জগত (Solar system) গ্রহ উপগ্রহ পরিবর্তন হয়েছে এবং সবশেষে বর্তমান পৃথিবীতে অথবা অজানা অন্য কোনো গ্রহে জীবনের সৃষ্টি হয়েছে. এই পৃথিবী শুরুতে একটি গলিত পিণ্ড ছিল ধীরে ধীরে ঠান্ডা হতে হতে এখানে জীবন সৃষ্টির অনুকূল পরিবেশ তৈরি হয়। বর্তমান ডিজিটাল যুগে এসে সামষ্টিক শিক্ষা ও শিক্ষণ প্রক্রিয়ায় বিশ্বব্রহ্মাণ্ড সৃষ্টি থেকে বর্তমান পৃথিবীর অবস্থাকে বৈজ্ঞানিক ভিত্তিতে ব্যাখ্যা করার সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে। পৃথিবীতে ঘটে যাওয়া প্লেট টেকটোনিক, ভূমিকম্প, আগ্নেয়গিরির অগ্নুৎপাত এর মত ভৌতিক বিষয়গুলো স্পষ্ট ব্যাখ্যা করা যায়।

অধ্যায়-২ঃ  সৌরজগৎ ও আমাদের পৃথিবী

 এ অধ্যায়ে আমরা কি শিখবো?

সৌরজগৎ সহ মহাবিশ্বের সমস্ত ভর এর মধ্যে 98% হাইড্রোজেন এবং হিলিয়াম দিয়ে তৈরি ।যখন নতুন কোন নক্ষত্র তৈরি হয় তখন বিপুল পরিমাণ রাসায়নিক পদার্থ মেঘের আকারে সৃষ্টি হয় এগুলো মূলত হাইড্রোজেন এবং হিলিয়াম কনা। এই রাসায়নিক পদার্থ সম্বলিত মেঘ নতুন সৃষ্ট নক্ষত্রের চারদিকে ঘুরতে থাকে এই অবস্থাকে বলা হয় গল্ডিলক (Goldilock) অবস্থা এখানে মহাকর্ষ বল বিদ্যমান থাকে এবং যত্রতত্রভাবে সংঘর্ষ হয় ওই সৃষ্ট মেঘের রাসায়নিক মেঘের মধ্যে। হাইড্রোজেন ও হিলিয়াম পরমাণু গুলো একে অপরের সাথে সংযুক্ত হতে হতে আরো বৃহৎ আকারের অধিক ভোরের মৌলিক পদার্থ তৈরি করে এই প্রক্রিয়াকে বলা হয় অ্যাক্রেশন (Accretion)। হালকা মৌলিক পদার্থ যেমন হাইড্রোজেন ও হিলিয়াম এর সমন্বয় কিছু কিছু গ্রহ তৈরি হয় যদিও এখানে একটি জটিল প্রক্রিয়া বিদ্যমান যেমন বৃহস্পতি ও শনি গ্রহ এরকম হাইড্রোজেন ও হিলিয়াম পরমাণুর আধিক্য দেখা যায়। ঠিক এভাবেই হাইড্রোজেন ও হিলিয়াম পরমাণুর কখনো কখনো পুনরায় বিস্ফোরণের মাধ্যমে নতুন গ্রহ তৈরীর প্রক্রিয়া শুরু হয় যেখানে অ্যাট্রিশন প্রক্রিয়ায় অধিক পারমাণবিক সংখ্যা ভর সম্বলিত পদার্থ তৈরি হয়। আমাদের পৃথিবী তৈরীর প্রক্রিয়া কি ঠিক এভাবেই। পৃথিবীর যেসব মৌলিক পদার্থ গুলো অধিক পরিমাণে বিদ্যমান তার মধ্যে অক্সিজেন, সিলিকন, অ্যালুমিনিয়াম, আয়রন। কিন্তু হাইড্রোজেন ও হিলিয়াম অধিক পরিমাণে নয়, যেখানে শনি ও বৃহস্পতি গ্রহে হাইড্রোজেন ও হিলিয়াম এর আধিক্য দেখা যায়। 

আমাদের পৃথিবী আজ থেকে 4.6 বিলিয়ন বছর আগে তৈরি হয়। আমাদের পৃথিবীতে এক জটিল প্রক্রিয়ায় মৌলিক পদার্থ গুলো হাইড্রোজেন ও হিলিয়াম থেকে অধিক ভর বিশিষ্ট মৌলিক পদার্থ তৈরি হয় এবং একটি জটিল প্রক্রিয়ায় পৃথিবীপৃষ্ঠ ঠান্ডা হতে হতে জীবন সৃষ্টির একটি পরিবেশ তৈরি হয়।

সূর্যের জন্মঃ একটি নতুন দিনের সূচনা


Spread the love
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
%d bloggers like this: