লকডাউনে ঘরে বসে কিছু বিকল্প অনলাইনে আয়

বর্তমান করোনা ভাইরাসের কারণে আজা সারা বিশ্ব চরম বিপর্যয়ের মধ্যে পড়েছে। বাংলাদেশে ও এর প্রভাব পড়েছে বিশাল ভাবে। দেশের এক বিশাল জন গোষ্ঠী আজ চাকুর হারিয়ে দিশে হারা। তবে যারা একটু সচেতন বা বিকল্প কিছু করতে চান তাদের জন আজকের কিছু বিকল্প আয়ের ব্যাপারে পরামর্শ থাকবে।

১ঃফেসবুকের মাধ্যমে আয়

যারা একটু আধটু হাতের কাজ জানেন বিশেষ করে যে কোন নকশি ডিজাইনের কাজ তাদের জন্য ই লকডাউন একটা বড় সুযোগ বিকল্প কিছু আয় করার। আপনি আপনার পছন্দের পোষাকে একটু সুন্দর করে যে কোন হাতের সেলাই করে নিপুণ ডিজাইনে সেটা আবার আপনার ফেসবুকের মাধ্যমে বন্ধুদের কাছে বিক্রি করতে পারবেন। বর্তমানে ফেসবুক ব্যবসার জন্য একটা বড় মাধ্যম। সারা দেশে আপনি আপনার পণ্য বিক্রি করতে পারবেন। ধীরে ধীরে আপনার ব্যবসার পরিধি পাবে। তবে এজন্য আপনাকে কিছুটা সৃজনশীল হতে হবে। যা করবেন মন দিয়ে ভাল ডিজাইনের হাতের নকশি করা পণ্য খুব চাহিদা রয়েছে বাজারে। আপনি সফল হবেন ই এই দৃঢ় বিশ্বাসে কাজে নেমে পড়ুন আজি। এখানে একটা ফেসবুকের পেজ দেখুন যারা আপনার মতই নবীন এবং একটা ধারনা পেতে পারেন। Nodis Craft

২ঃ ঘরে বসে কন্টেন্ট লিখুন

বর্তমানে ফেসবুকের মাধ্যমে এখন অনেকেই কন্টেন্ট লিখে অনেক আয় করছেন। কন্টেন্ট হল কোন একটা অনলাইন ওয়েবসাইটের লেখা লেখি করা। এ ক্ষেত্রে আপনাকে তেমন কিছু পূর্ব অভিজ্ঞতা থাকা লাগবে না শুধু একটু আগ্রহ থাকলে হবে। ফেসবুকের জব বিজ্ঞপ্তিতে আপনি দেখে আসতে পারেন প্রতিদিন শত শত কন্টেন্ট লেখার জন্য বিজ্ঞপ্তি আছে। সেখানে আপনি আপনার আগ্রহ প্রকাশ করে লিখতে পারেন। প্রতিটি কন্টেন্ট ৫০০-১০০০ শব্দের মধ্যে বাংলা অথবা ইংরেজিতে ২০০ টাকা থেকে ৫০০ টাকার মধ্যে পারিশ্রমিক পাবেন। আর যদি ভাল লিখতে পারেন তবে তা হবে আপনার স্থায়ী একটি অনলাইনে আয় করার উৎস। যেখানে জব পাবেনঃ কন্টেন্ট লিখতে আবেদন করুন

৩ঃ সৃজনশীল মেধাকে বের করে আনুন

এমন অনেক মানুষ আছে যারা যাদের সুপ্ত প্রতিভাবে প্রকাশ করতে পারেনা। তাই এই লকডাউনে আপনি আপনার সৃজনশীল মেধা কে কাজে লাগাতে পারেন। আর এটা হতে পারে আপনার বিকল্প আয়ের চিরদিনের জন্য সফলতার একটু সুপ্ত পথ যা আপনি জানতেন না। আপনি হয়ত ভাল গান গাইতে পারেন, ভাল ছবি একতে পারেন এগুলোই আপনি রেকর্ড করে ইউটিউব এ আপলোড করে দিন। এটা আপনাকে সফলতা দিবে অবশই। আপনার কিছু কিছু সুপ্ত প্রতিভা রয়েছে সেগুলো কে আপনার পণ্য মনে করে বিক্রি করুন। বই বা নতুন নতুণ ডিজাইনের নোট বুক বাধাই করতে পারেন আজ ই লেগে পড়ুন। নিজের কাজে বিশ্বাসী হন। সফল আপনি হবেন ই।

বই বা নতুন নতুণ ডিজাইনের নোট বুক বাধাই

৪ঃ ইউটিউব এ শিক্ষা প্রদান ও আয়

লকডাউনের এই সময়ে আপনি আপনার ভবিষ্যতের জন্যও কিছু ভাল আয়ের পথ তৈরি করে নিতে পারেন। সেটা হল ইউটিউবে অনলাইন ক্লাস নেয়া। যদিও এই পদ্ধতিটি আয়ের জন্য একটু সময় সাপেক্ষ তবে অবিশ্বাস করার মত কিছু নয়। অনলাইনে ক্লাস বা ভিডিও আপলোড করে অনেকে মাসে ৭০-৮০ হাজার টাকা পর্যন্ত আয় করছে বাংলাদেশে থেকে। তাই আপনি শুরু করতে পারেন।

Please follow and like us:

Author

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Next Post

এসতেগফার বা তওবার ২৫টি উপকারিতা ও ফজিলত

Mon Jun 29 , 2020
পবিত্র কোরান ও হাদীসের আলোকে এসতেগফারের অসংখ্যা উপকারিতা রয়েছে। তার মধ্যে ২৫টি উপকারিতা ও ফযিলত বর্ণনা করা হলো। তওবা এবং এস্তেগফার প্রায় একই, তবে পার্থক্য শুধু এতটুকু যে, এস্তেগফার হলো জবান বা মুখ দ্বারা  ক্ষমা চাওয়া আর তওবা হলো অন্তর দিয়ে ক্ষমা চাওয়া।এস্তেগফারের জন্য গোনাহ হওয়া বা গোনাহ থাকা জরুরি নয়। নবী রাসুলরা প্রত্যহ অসংখ্যবার আল্লাহর কাছে এস্তেগফার করতেন, অথচ তাদের কোনো গোনাহ ছিল না। তারা নিষ্পাপ তথা মাসুম ছিলেন। আবু হুরায়রা (রা.) থেকে বর্ণিত, নবী করিম (সা.) দোয়ায় বলতেন, ‘হে আল্লাহ আমার ছোট-বড়, ইচ্ছায়-অনিচ্ছায়, গোপনে-প্রকাশ্যে, শুরুতে ও শেষে কৃত সব গোনাহ ক্ষমা করে দাও।’ (মুসলিম)। বান্দা তওবা […]