অস্ট্রেলিয়া ফুল ফান্ডেড আন্তর্জাতিক (বাংলাদেশ) Scholarship ২০২০

বর্তমানে পড়াশোনার খরচ বৃদ্ধির জন্য বিশ্বব্যাপী উচ্চশিক্ষায় একটি দুরূহ ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে। কিন্তু যদি পূর্ণ অর্থায়নে Scholarship পাওয়া যায় সেক্ষেত্রে হবে একটি চা/ কফির মূল্যের সমতুল্য। অস্ট্রেলিয়া সরকার এই সুযোগ সৃষ্টি করেছেন উন্নয়নশীল দেশের উদীয়মান তরুণ শিক্ষার্থীদের উচ্চ শিক্ষার সুযোগ তৈরির জন্য। এই স্কলারশিপ উন্নয়নশীল দেশের ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য আন্ডারগ্রাজুয়েট ও পোস্ট গ্রাজুয়েট কোর্স সম্পন্ন অস্ট্রেলিয়ার ইউনিভার্সিটি তে অথবা কারিগরি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট পড়াশোনার জন্য প্রযোজ্য। এই স্কলারশিপ এর উদ্দেশ্য হল উন্নয়নশীল দেশের উন্নয়নের স্বার্থে দীর্ঘমেয়াদি সম্পর্ক তৈরি করা।

Scholarship
Australian Scholarship 2020

যোগ্যতা শর্ত

  • প্রার্থীকে অবশ্যই কমপক্ষে 18 বছর বয়স হতে হবে ফেব্রুয়ারির ১ তারিখ ২০২০।
  • প্রার্থীকে অবশ্যই ওয়েবসাইটে বর্ণিত দেশের নাগরিক হতে হবে এবং সে দেশে বসবাস করতে হবে এবং সে দেশ থেকেই দরখাস্ত করতে হবে।
  • প্রার্থীকে অবশ্যই অস্ট্রেলিয়ার নাগরিক নন অথবা কোন নাগরিকত্ব রয়েছে অথবা নাগরিকত্ব ভিসার জন্য দরখাস্ত করেছেন এমন প্রার্থী দরখাস্ত গ্রহণযোগ্য নয়।
  • বৈবাহিক সূত্রে অথবা বাগদত্তা অথবা যেকোনো সম্পর্কে প্রার্থী যদি কোন অস্ট্রেলিয়া অথবা নিউজিল্যান্ডের নাগরিকত্ব বিশিষ্ট অথবা পার্মানেন্ট নাগরিকত্ব রয়েছে এমন কারো সাথে বৈবাহিক সম্পর্কিত থাকে এসব প্রার্থীর দরখাস্ত গ্রহণযোগ্য নয়।
  • কুক আইল্যান্ড নিউ এন্ড তকেলাও সহ নিউজিল্যান্ডের নাগরিকত্ব রয়েছে এমন প্রার্থী দরখাস্ত করতে পারবে শুধুমাত্র স্টুডেন্ট ভিসাতে।
  • প্রার্থীকে অবশ্যই প্রতিষ্ঠান কর্তৃক ভর্তির যাবতীয় শর্ত মেনে ভর্তির জন্য আবেদন করতে হবে।
  • প্রার্থীকে অবশ্যই নিজ নিজ বিভাগ কর্তৃক আরোপিত শর্ত মেনে স্টুডেন্ট ভিসার জন্য হতে হবে।

মনোনীত দেশ

বাংলাদেশ সহ অন্যান্য দেশ

প্রোগ্রাম

  • আন্ডারগ্রাজুয়েট ডিগ্রি প্রোগ্রাম
  • পোস্ট গ্রাজুয়েট ডিগ্রি প্রোগ্রাম।

Scholarship প্রোগ্রাম কর্তৃক আরোপিত সুযোগ-সুবিধা

  • পূর্ণ টিউশন ফি মওকুফ
  • ব্যক্তিগত একটি ফিরতি বিমান টিকেট (ইকোনমি ক্লাস)।
  • স্থাপনা অ্যালাউন্স এরমধ্যে হাউসিং এক্সপেন্স বইপত্র পড়াশোনার সামগ্রী।
  • লিভিং এক্সপেন্সেস এর জন্য খরচ খরচাদি এটা প্রতি দুই সপ্তাহে একবার করে প্রদান করা হবে ডিপার্টমেন্ট কর্তৃক মনোনীত নির্ধারিত হারে।
  • ইন্ট্রোডাকশন একাডেমিক প্রোগ্রামের অংশগ্রহণের সুযোগ যা কিনা একাডেমিক পড়াশোনার শুরুতে অস্ট্রেলিয়ায় বসবাস পড়াশোনার পরিবেশ সম্বন্ধে ধারণা দেওয়ার জন্য প্রোগ্রাম মনোনীত প্রোগ্রাম।
  • মেডিকেল ইন্সুরেন্স
  • ফিল্ড ওয়ার্ক
  • একাডেমিক সহায়তা

ইংরেজি দক্ষতা সার্টিফিকেট

  • আইইএলটিএস সার্টিফিকেট অনধিক দুই বছরের মধ্যে অর্জিত ব্যান্ড ৬.৫
  • টোফেল স্কোর কমপক্ষে ৫৮০ (লিখিত)
  • ন্যূনতম ৯২ অর্জিত রেকর্ড ইন্টারনেটভিত্তিক টোফেল পরীক্ষা

দরখাস্ত করার নিয়মাবলী

  • প্রার্থীকে অবশ্যই নির্দিষ্ট সময়সীমার মধ্যে আবেদন করতে হবে। আবেদন করুন
  • প্রার্থীকে অবশ্যই এই লিংকে প্রবেশ করে রেজিস্টার করে নিতে হবে।
  • প্রার্থীকে অবশ্যই মেয়াদের পূর্বেই অনলাইনে আবেদন করার জন্য জোর অনুরোধ করা হচ্ছে।

প্রয়োজনীয় কাগজপত্র

অবশ্যই নিম্নোক্ত ডকুমেন্টগুলো জমা দিতে হবে।

  • স্টেটমেন্ট অফ পারপাস ও অবজেক্টিভ।
  • অফিশিয়াল টেস্ট স্কোর
  • তিনটি রেফারেন্স পত্র
  • রিজুমে অথবা কারিকুলাম ভিটা
  • সকল নম্বরপত্র মার্কশিট স্ক্যান কপি

Scholarship দরখাস্তের সময়সীমাঃ আবেদনের সময়সীমা দেশ ভিত্তিক ভিন্ন ভিন্ন ।আবেদনের তারিখ দেখুন বাংলাদেশ সহ অন্যান্য দেশ

Please follow and like us:

Author

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Next Post

লকডাউনে বাল্যবিবাহ

Sat Jun 13 , 2020
লকডাউন শুরু হওয়ার পর থেকেই সবচেয়ে যে খবরটি আমাদের বেশি নজর কেড়েছে তা হলো লকডাউন চলাকালীন বাল্যবিবাহ (Chaild Marrage)। যারা একটু সচেতন আর নূন্যতম শিক্ষিত আছেন তাদের অনেকেই হয়ত অবাক হওয়ার চরম শিখরে পৌঁছে গেছেন এই খবর শুনে যে এই দুঃসময়ে বিয়ে! তাও আবার বাল্যবিবাহ।যেখানে কিনা এক শ্রেণীর মানুষ আম্ফান […]