করোনা ভাইরাস আর কত প্রাণ কেড়ে নেবে?

আজ পর্যন্ত সমস্ত পৃথিবীতে ১৯৫ টি দেশে (২৮ মার্চ ২০১০ পর্যন্ত) করোনা ভাইরাস ২৮৩৮১ টি প্রাণ কেড়ে নিয়েছে। এবং আক্রান্ত হয়েছে ৬১৭৭০০ জন। পৃথিবীর সব থেকে বেশি মারা গিয়েছে ইতালিতে ৯১৩৪ জন। এখন ভাইরাস বিশেষজ্ঞরা ধারনা করেছেন যে পরবর্তী সবথেকে বেশি আক্রান্ত দেশ আমেরিকা হতে পারে। দেশে টিতে প্রতিদিন সব থেকে বেশি হারে আক্রান্ত হচ্ছে। ২৮ মার্চ ২০২০ পর্যন্ত আমেরিকাতে আক্রান্তর সংখ্যা ১০৫১০৯ জন মারা গিয়েছে ১৭১৭ জন। বাংলাদেশ তুলনামুলকভাবে একটু নিরাপদ অবস্থানে আছে কারণ অন্যান্য দেশের তুলনায় বাংলাদেশে মৃত্যু হার অনেক কম। বাংলাদেশে ২৮ মার্চ ২০২০ তারিখে মৃত্যু ৫ জন আক্রান্ত ৪৮ জন। এর কৃতিত্ব এখন পর্যন্ত বাংলাদেশ সরকারের। স্বাস্থ্যব্যাবস্থাকে আগের তুলনায় আরও আধুনিক ও জনগণকে আরও সচেতন করার জন্য।

করোনা ভাইরাসের প্রথম দিকের কিছুদিনের মৃত্যুহার পর্যালোচনা করলে দেখা যায়। জানুয়ারি ২২, ২০২০ তারিখে পৃথিবীতে মোট মৃত্যু ছিল ১৭ জন আর ২৭ মার্চ ২০২০ তারিখে ছিল ২৭৩৪৪ জন। এবং যেখানে প্রতিদিনের মৃত্যু হার ০ জন থেকে ৩২৭১ জন এ এসে দাঁড়িয়েছে। বর্তমান করোনা ভাইরাসের আক্রান্তের হার দিনে দিনে বৃদ্ধি পাচ্ছে কিন্তু কমার কোন লক্ষণ দেখা যাচ্ছেনা। করোনা ভাইরাসের বৃদ্ধি হার ধনাত্মক না ঋণাত্মক এটা বোঝার জন্য বর্তমান কিছু তথ্যও উপাত্ত নিয়ে হিসাব কষে দেখা যাক।

করোনা ভাইরাসের প্রতিদিনের মৃত্যুর জন্য বৃদ্ধি সূচক নির্ণয়ঃ

বৃদ্ধি সূচক= প্রতিদিনের নতুন মৃত্যু/ ঠিক আগের দিনের মৃত্যুর সংখ্যা

সে হিসাবে, যদি প্রতিদিন মৃত্যুর সংখ্যা বৃদ্ধির হার 7% হয়, তবে, বৃদ্ধি সূচক হবে, ১.০৭।

বৃদ্ধি সূচক ১ এর বেশি মানে করোনা ভাইরাসে মৃত্যু সংখ্যা বাড়তেই থাকবে।আর বৃদ্ধি সূচক ০-১ এর মধ্যে হলে মৃত্যু সংখ্যা কমতে থাকবে। তাই বৃদ্ধি সূচক ১ এর কম মানে ভাল খবর। আর সব সময় ১ এর বেশি মানে জ্যামিতিক হারে মৃত্যুর সংখ্যা বৃদ্ধি পাবে।

সারা পৃথিবীতে বর্তমান করোনা ভাইরাসের আক্রান্তের সংখ্যা ও মৃত্যুর সংখ্যা দেখে মনে হচ্ছে সহসা করোনা ভাইরাসের কারণে মৃত্যুর সংখ্যা কমার সম্ভাবনা নাই।

করোনা ভাইরাসের বৃদ্ধি সূচক ২৪ মার্চ ২০২০ পর্যন্ত

আমেরিকা কেন এতো ঝুঁকি পূর্ণ?

আমেরিকাতে এখন পর্যন্ত ১০৫১০৯ জন আক্রান্ত হয়েছে আর মারা গিয়েছে ১৭১৭ জন। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছে মাত্র ২৫৩৮ জন আর চিকিৎসারত আছে ১০০৯০১ সে হিসাবে এখনও মৃত্যু ঝুঁকি রয়েছে ওই সব চিকিতসারত ব্যাক্তিদের। আমেরিকাতে প্রতিদিন আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে।

আরও পড়ুন

করোনা ভাইরাসের বিস্তার মানব জাতির ধ্বংসের আলামত নয় তো? ইতিহাস কি বলে?

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে যে সব খাবার বাদ দিতে হবে

করোনা ভাইরাসের সুপ্তাবস্থা

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধী মাস্ক ও পোশাক পরার সম্পূর্ণ বিধিমালা PPE

রাবার গ্লোভস পরা হাতে করোনা ভাইরাসের জীবাণু

Please follow and like us:

Author

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Next Post

করোনা ভাইরাস কোভিড-১৯ রোগের বিকল্প চিকিৎসা

Sat Mar 28 , 2020
আব্দুল কাইয়ুম, মাসিক ম্যাগাজিন বিজ্ঞানচিন্তার সম্পাদক এর মতে, যে সব রোগী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর সুস্থ হয়ে উঠেছেন, তাঁদের রক্তের প্লাজমা অন্য রোগীদের শরীরে ব্যবহার করে তাঁদের করোনা রোগ থেকে সুস্থ করে তোলা যেতে পারে। কারণ সুস্থ হয়ে ওঠা রোগীদের শরীরে করোনা রোগ প্রতিরোধী অ্যান্টিবডি তৈরি হয়ে গেছে। সেটা […]
Covid-19