রাবার গ্লোভস পরা কি করোনা ভাইরাস প্রতি রোধে কার্যকর?

আমরা এখন অনেকেই অফিস আদালতে রাবার গ্লোভস পরে কাজ করতে দেখি। নভেল করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে এটা কি আসলেই কোন কাজ করে?

রাবার গ্লোভস পরা হাতে করোনা ভাইরাসের জীবাণু লেগে থাকতে পারে। আর সে জন্য রাবার গ্লোভস পরে কার সাথে হ্যান্ড সেক করে করোনা ভাইরাসের জীবাণু হাতে লেগে গেলে সেটা আমাদের জন্য ঝুঁকি পূর্ণ

বারার গ্লোভস পরে দীর্ঘ সময় অফিস আদালতে কাজ করার সময় নাক , মুখ, চোখে হাত দিলে করোনা ভাইরাস আক্রান্ত হতে পারে। তাই রাবার গ্লোভস কখনই নিরাপদ হয়

কি করনীয়?

রাবার গ্লোভস পরলেও সতর্ক থাকতে হবে। একই গ্লোবস বার বার পরা যাবে না।  রাবার গ্লোবস পরা অবস্থায়  নাক মুখ বা চোখ স্পর্শ করা করা যাবে না  ব্যবহারের পর রাবার গ্লোভস নিরাপদ জায়গায় ফেলে দিতে হবে। খালি হাত বার বার সাবান দিয়ে ধুতে হবে। মনে রাখতে হবে, হাতে জীবাণু লেগে থাকলে তা নাক মুখ বা চোখ বা অন্যও কোন মাধ্যমে শরীরের ভিতর বিশেষ করে গলা ও ফুসফুস এ পৌঁছায়। করোনা ভাইরাসের জন্য ফুসফুস হল আশ্রয় স্থান যেখানে ভাইরাস টি আক্রমণ করে ও বংশ বিস্তার করে

কিছু উপদেশ WHO গাইডলাইনে অনুসারেঃ

করোনা ভাইরাস সম্পর্কিত গবেষণার ফল প্রতিদিন প্রকাশিত হচ্ছে। আর এই ভাইরাস সম্বন্ধে তথ্য হালনাগাত করা হচ্ছে। তাই নিয়মিত খবর পড়ুন ও করোনা ভাইরাস সম্বন্ধে জানুন। কিছু মানুষের জন্য করোনা ভাইরাসের লক্ষণ খুব ই কম অন্যথায় কিছু মানুষের জন্য অনেক ভয়ানক যা মৃত্যু পর্যন্ত পৌছায় ১। নিয়মিত হাত ধুতে হবে। কারণ সাবান পানি বা অন্যও কোন সানিটাইজার করোনা ভাইরাস ২। সামাজিক দূরত্ব বজায়ে রাখুন। কমপক্ষে তিন ফুট বা এক মিটার। হাসি কাশি থেকে দুরে থাকুন। ৩। হাসি কাশি দেয়ার সময় টিস্যু বা হাতের কনুই দিয়ে মুখ দেখে নিন। হাচি কাশি দেয়ার পর আর নাক মুখ চোখে হাত দিবেন না। সাবান দিয়ে হাত ২০ সেকেন্ড ধরে ধোয়ার পর হাত জীবাণু মুক্ত হয় ৪। বাসায় থাকুন। যদি আপনার জ্বর সর্দি কাশি, গলা ব্যথা, শ্বাসকষ্ট তবে অতি দ্রুত ডাক্তারের পরামর্শ নিন ৫। কার সাথে কুশল বিনিময় করার জন্য হ্যান্ড সেক করে নয়, মুখে আসাল্লামু আলাইমুক, নমস্কার, বাই বাই, টা টা, অথবা অন্য কোন ভাবে শারীরিক দূরত্ব বজায়ে রাখুন।

 করোনা ভাইরাসের জন্য নিজেকে যেভাবে প্রস্তুতি রাখবেন।

স্মার্ট হোনঃ ১। গনস্বাস্থ্য বিভাগের সকল তথ্য মেনে চলুন ২। খবর ও সাম্প্রতিক আপডেট গুলো অনুসরণ করুন ৩। গুজব ছড়াবেন না। সর্বদা খবরের সত্যতা যাচাই করুন। নিরাপদ থাকুনঃ ১। যাদের হৃদরোগ, ডায়াবেটিস ও হাঁপানি আছে, তাদের কে অতিরিক্ত সচেতন হতে হবে ২। ভিড় ও লোক সমাগম, পার্টি, অনুষ্ঠান এড়িয়ে চলুন দয়ালু হোনঃ ১। যারা করোনা আক্রান্ত তাদের প্রতিও সহানুভূতিশীল হউন ২। সঠিক নির্দেশনা প্রদান করুন
Please follow and like us:

Author

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Next Post

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধী মাস্ক ও পোশাক পরার সম্পূর্ণ বিধিমালা PPE

Wed Mar 25 , 2020
পিপিইর (PPE) অর্থ হল ব্যক্তিগত নিরাপত্তার জন্য মাস্ক বা অন্যান্য নিরাপদ পোশাক পরা। সম্প্রতি বাংলাদেশের স্বাস্থ্য মন্ত্রী বলেছেন সবাইকে পিপিই করার দরকার নাই। আবার আইসিডিডিরবি থেকে বলা হয়েছে যে পৃথিবী ব্যাপী পিপিইর সংকট এজন্য বাংলাদেশেও প্রয়োজনীয় মাস্ক বা অন্যান্য নিরাপদ পোশাক নাই।করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় এটা খুব হতাশাজনক ও বিপদাপন্নও বটে। […]
করোনা ভাইরাস