colorgeo.com

Disaster and Earth Science

মাকাল ফল কি আসলেই নিষ্ফলা কি আছে ভিতরে?

মাকাল
Spread the love
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    1
    Share

মাকাল বা মাকালফল (ইংরেজি: Redball snakegourd) (Trichosanthes tricuspidata) হচ্ছে Cucurbitaceae[২] [৩] পরিবারের Trichosanthes গণের একটি লতানো উদ্ভিদ। মাকাল শব্দটি বাংলা প্রবাদে বাজে অর্থে ব্যবহৃত হলেও এর প্রাচীন নাম ছিল মহাকাল যা ভেষজ গুণে অত্যন্ত সমৃদ্ধ। এই নামটি বিকৃত হয়ে কালে কালে ‘মাকাল’ নামে বাংলায় স্থান হয়েছে। ভারতীয় চিকিৎসকরা মনে করেন যে মাকাল ফল এক সময় হাঁপানি, নাক-কানের ঘা এমন কি কুষ্ঠ রোগেও ব্যবহৃত হয়েছে। যুগ যুগ পুরনো মাথা ব্যথার জন্যে তেল দিয়ে মিশ্রিত মাকালের শিকড় খুব উপযোগী। গাছে ধরা অবস্থায় এ ফলের মতো সুন্দর ফল সত্যি খুব কম দেখা যায়, তবে ভেতরটা খুবই কদর্য।তাছাড়া এটি একটি পরিবেশবান্ধব গাছ। এই ফল ও গাছের রয়েছে অনেক ঔষধি গুণ। মাকাল গাছের শিকড় কোষ্ঠকাঠিন্য ও বদহজমের ওষুধ তৈরিতে কাজে লাগে। কফ ও শ্বাসকষ্ট নিরাময়ে, নাক ও কানের ক্ষত উপশমে মাকাল গাছ ওষুধ হিসেবে ব্যবহৃত হয়। জন্ডিস, দেহে পানি জমা (শোথ রোগে), স্তনের প্রদাহ, প্রস্রাবের সমস্যা, বাত ব্যথা, পেট ফুলা এবং শিশুদের অ্যাজমা নিরাময়ে মাকাল গাছের ফল-মূল-কাণ্ড বিশেষ ভূমিকা আছে। মাকাল ফলের বীজের তেল সাপের কামড়, বিছার কামড়, পেটের সমস্যা (আমাশয়, ডায়রিয়া), মৃগীরোগ এবং সাবান উৎপাদনের জন্য ব্যবহার করা যায়। এ ছাড়া মাকাল ফলের বীজের তেল চুলের বৃদ্ধি ও চুল কালো করতে কার্যকর। মাকাল ফলের বিচি ও অাঁশ শুকিয়ে গুঁড়ো করে পানিতে দ্রবীভূত করে ফসলে প্রয়োগ করলে পোকামাকড়, ইঁদুর ও রোগবালাই দমনে বিষ হিসেবে কাজ করে থাকে।

যেকোনো ফলের একটা নিজেস্ব গুণাগুণ থাকে। এ ফলের এ অনেক গুণ আমারা কোন দিন তা খুঁজে দেখিনি। আর এর ব্যবহার কোন দিন সামনে আনিনি। আমরা শুধু খাবার কথাটাই ভেবেছি। খেতে পারা যায় না বলে এই ফলের কোন আদর নাই। কিন্তু সৌন্দর্য বর্ধনে তো আমরা এর চাষ করতে পারতাম।

মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গল থানার রাঁধানগর পাহাড়ে এই ফল টি পাওয়া যায়। এর সৌন্দর্য দেখে অনেক আকর্ষণীয় মনে হবে এবং চোখ ফেরান যাবে না। কারণ এর টুকটুকে লাল রং যেকোনো মানুষকে আকর্ষণ করবে। মৌলভীবাজার এ ঘুরতে গিয়ে প্রথম যখন চোখে পড়লও তখন ফটো তোলার জন্য এগিয়ে গিয়ে অবাক হই । এতো সুন্দর ফল আগে কখন দেখি নী। তাই আসে পাশের মানুষ কে জিজ্ঞাসা করাতে তারা বলল যে এটা মাকালফল। সত্যি ধন্য । এতো দিন আমরা যে ফলের কথা মুখে মুখে শুনে এসেছি আর কথাড় কথা বলে ভেবেছি সেই ফল আজ দেখতে পাব। ভাবিনি কখন।

মাকাল

বর্তমান সমাজে কিছু মাকাল ফল রুপী মানুষ দেখা যায়।তারা সাজ গোঁজে নিজেদের অনেক ধনীর দুলাল বা দুলালী হিসাবে জাহির করে এতে সাধারণ বিশ্বাসী মানুষের ক্ষতি হয়।তারা সহজেই সে সব মাকাল ফল রুপী মানুষ কে বিশ্বাস করে আপন করে নিতে চায় আর এতে সে প্রতারিত হয়।তবে তাদের থেকে দুরে থাকাটা অনেক বিচক্ষণতার পরিচয় দিয়ে মোকাবেলা করতে হয়। এখন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের কল্যাণে তারা নিজেদের নিষ্ফলতা লুকিয়ে শ্রী কে সামনে আনে। যদিও ব্যক্তি গত ভাবে তাদের নিজের ভাগ্য উনয়নে কোন কাজ হয় বলে কেউ বিশ্বাস করে না। তাই মাকাল ফল নয় গুণ সমৃদ্ধ মৃদু ভাষী মানুষ চাই সমাজে।

মাকাল

আসুন আমরা আমদের পাশের উঠানে এই গাছ তা লাগাই আর এর বিলুপ্তির হাত থেকে একে রক্ষা করি। কারণ এমনি করে একটি একটি ফল গাছ চির দিন হারিয়ে যাবে।

Please follow and like us:

Spread the love
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    1
    Share
%d bloggers like this: