Colorgeo

Classroom of Money and Wisdom for Earth Science

ভূমিকম্প ভবিষ্যৎবাণী করতে পারি

কি কারণে ভূমিকম্প
Spread the love

এক কথায় উত্তর, না। ভূমিকম্পের ভবিষ্যৎ বাণী দেওয়া পৃথিবীর যেকোন অরগানাইজেশন এর জন্য হলেও অসম্ভব। কোন বিজ্ঞানী ভূমিকম্পের ভবিষ্যৎবাণী করতে পারে না। আমরা আজ শুধু ভূমিকম্প সংঘটিত হওয়ার সম্ভাবনা অনুমান করতে পারি কোন একটি নির্দিষ্ট অঞ্চলের জন্য কোন একটি নির্দিষ্ট সময়ে।

ভূমিকম্পের ভবিষ্যৎবাণী তিনটি প্রধান বিষয়ের উপর সম্পর্কিত 1। সময় এবং তারিখ 2। স্থান 3। তীব্রতা ।

কিছু মানুষ বলবে যে তারা ভূমিকম্পের তীব্রতা ভবিষ্যৎবাণী করতে পারেন কিন্তু নির্দিষ্ট কিছু কারণে তারা এটা ভুল বলে।

ভূমিকম্প এর ব্যাখ্যা দেওয়া হল

কারণ ভূমিকম্প কখনোই পৃথিবীর মেঘ, আবহাওয়া ও জলবায়ু পরিবর্তনের সাথে সম্পর্কিত নয় । মানুষের শরীরের যে কোন ব্যথা বেদনা মানসিক অবস্থার সাথে সম্পর্কিত নয়। তারা কখনোই বিজ্ঞানের তথ্যের ভিত্তিতে এগুলো বলে না। তারা কিছু মনগড়া কথা দিয়ে ভূমিকম্পের ভবিষ্যৎবাণী করার প্রচেষ্টা করে থাকে যা সম্পূর্ণরূপে ভূল ও অবিশ্বাস্য। ভূমিকম্পের ভবিষ্যৎ বাণী প্রদানকারী ব্যক্তি বা সংস্থা কখনোই উপরের বর্ণিত তিনটি প্রধান উপাদান এর সঠিক তথ্য প্রদান করতে পারে না। যেমন, কোথায়, কখন এবং কত তীব্রতার ভূমিকম্প সংঘটিত হবে। তারা ভূমিকম্পের ভবিষ্যৎবাণী এত সাধারণভাবে উপস্থাপন করে যে, যে কোন ব্যক্তি এটা করতে পারে। যেমন তারা বলবে আগামী তিন দিনের মধ্যে আমেরিকাতে চার মাত্রার একটি ভূমিকম্প সংঘটিত হবে, যা সম্পূর্ণরূপে একটি সাধারণ কথা। কারণ প্রতিনিয়ত অসংখ্য ভূমিকম্প সংঘটিত হচ্ছে।

পৃথিবীর বিভিন্ন অঞ্চলে বিশেষত ভূমিকম্পপ্রবণ অঞ্চল রিং অফ ফায়ার, এখানে দুটি টেকটনিক প্লেট একে অপরের থেকে দূরে সরে যায় অথবা একে অপরের দিকে চলে আসে এবং সাধারন ভাবেই ভূমিকম্প সংঘটিত হয়। (2) দুই মাত্রার একটি ভূমিকম্প আজ আমেরিকার পশ্চিম উপকূলের সংঘটিত হবে।

কাকতালীয়ভাবে কোন ভূমিকম্পের ভবিষ্যৎবাণীর সাথে বাস্তবিক ভূমিকম্প সংঘটিত হওয়া যদি মিলে যায় তবে তারা তাদের কৃতিত্ব বলে দাবি করে। যদিও ভবিষ্যৎবাণী প্রদান করার ক্ষেত্রে তাদের ঘোষিত তিনটি উপাদান এর সুনির্দিষ্ট উল্লেখ থাকে না তবুও তারা এভাবে কাকতালীয় কোন ঘটনাকে নিজেদের কৃতিত্ব বলে দাবি করে।ভবিষ্যৎবাণী সাধারণত কয়েকটি বিশেষ কৌশলের উপর ভিত্তি করে করা হয়ে থাকে। এই ভবিষ্যদ্বাণীগুলো বেশিরভাগ সময় সঠিক হয় না। কিছু কিছু ঘটনা যেমন ছোট মাত্রায় ঘটা, গৃহপালিত পশুর অস্বাভাবিক আচরণ পরিলক্ষিত হয় এসবের উপর ভিত্তি করে ভবিষ্যদ্বাণী করা হয়। যা বেশিরভাগ সময় সঠিক হয় না।

একটি উদাহরণ

ক্ষুদ্র মাত্রার ভূমিকম্পের নিদর্শন দেখে কয়েক দশক আগে চীন দেশে ভূমিকম্পের একটি ভবিষ্যদ্বাণী করা হয়েছিল যা শুনে মানুষ রাস্তায় রাত্রি যাপন করেছিল এবং ধ্বংসাত্মক ভূমিকম্প সত্যি ঘটেছিল এবং তারা তাদের জীবন বাঁচিয়ে ছিল। এই ধরনের ক্ষুদ্র মাত্রার ভূমিকম্পের দর্শন এর ফলে বৃহৎ আকারের ঘটনা কদাচিৎ ঘটে থাকে। দুর্ভাগ্যবশত চীনদেশে পরবর্তী বড় ভূমিকম্প কোন পূর্বাভাস ছাড়াই আঘাত হেনেছিল এবং মানুষ মারা গিয়েছিল।

ক্ষুদ্র মাত্রার ভূমিকম্পের নিদর্শন দেখে বৃহৎ আকারের ভূকম্প ভবিষ্যৎ বানী করা যায়না